Latest Posts

ভারতের টেসলা বানাচ্ছে ব্যাঙ্গালোরের কোম্পানি Praveg Dynamic, এক চার্জে দৌড়াবে ৫০০ কিমি

ক্রমবর্ধমান পেট্রোল-ডিজেলের দাম ও সেইসাথে পরিবেশ দূষণ রুখতে বেশিরভাগ দেশ ইলেকট্রিক গাড়ি ব্যবহার করার দিকে ঝুঁকছে। ভারতের অটোমোবাইল কোম্পানিগুলো পাল্লা দিয়ে বৃদ্ধি করছে তাদের ইলেকট্রিক গাড়ি প্রোডাকশন ইউনিট। ইতিমধ্যেই ভারতীয় গ্রাহকরা ইলেকট্রিক গাড়ি পছন্দ করতে শুরু করেছে। প্রথমত এই গাড়িতে পেট্রোল বা ডিজেল না লাগায়, দৈনন্দিন খরচ প্রায় নেই বললেই চলে। এছাড়াও এই গাড়িগুলো পরিবেশ দূষণ করে না। বর্তমানে দেশজুড়ে বায়ুদূষণ একটা প্রধান সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এমনকি ভারতের রাজধানী দিল্লিতে দূষণের জন্য শীতকালে প্রায়ই অবস্থা শোচনীয়। তাই ভারতীয় গ্রাহকদের আস্তে আস্তে ইলেকট্রিক গাড়ি কেনার জন্য চাহিদা বাড়ছে। এবার তাই ভারতের ব্যাঙ্গালুরু শহরের কোম্পানি Praveg Dynamic কোম্পানি ভারতের বাজারের জন্য প্রিমিয়াম ইলেকট্রিক গাড়ি Pravaig Extinction MK1 লঞ্চ করতে চলেছে।

Pravaig Extinction MK1
Pravaig Extinction MK1

Praveg Dynamic কোম্পানির প্রিমিয়াম ইলেকট্রিক সেডান গাড়ি Praveg Extraction MK-1 কে ভারতের টেসলা বলা যাবে বলে দাবি করেছে কোম্পানি। এই গাড়িটি ভারতে পাওয়া যাওয়া অন্যান্য প্রিমিয়াম ইলেকট্রিক গাড়ির সাথে টেক্কা দিয়ে চলতে পারবে। ইলেকট্রিক গাড়ি জগতের সবচেয়ে প্রিমিয়াম Tesla গাড়ির সমসাময়িক হবে এটি। ভারতের তৈরি ইলেকট্রিক গাড়ির চার্জিং টাইম ও রেঞ্জ শুনলে আপনিও অবাক হবেন। গাড়িটি একবার চার্জে প্রায় ৫০০ কিলোমিটার পথ অব্দি যেতে পারবে। খুব কম ইলেকট্রিক গাড়ি পাওয়া যায় যার রেঞ্জ এতো ভালো। Hyundai কোম্পানির ইলেকট্রিক গাড়ি Kona Electric দেয় ৪৫২ কিলোমিটার রেঞ্জ। অন্যদিকে প্রিমিয়াম টেসলা গাড়ি এক চার্জে ৫০৭ কিলোমিটার অব্দি চলতে পারে।
Praveg Extraction MK-1 প্রিমিয়াম সেডান ইলেকট্রিক গাড়িতে ৯৬ KWh এর একটি ব্যাটারি আছে যা গাড়ির মোটরকে শক্তি দেয়। এই মোটর ২০০ bhp পাওয়ার উৎপন্ন করতে পারে। গাড়িটির টপ স্পিড ১৯৬ km/h এবং মাত্র ৫.৫ সেকেন্ডে ০-১০০km/h স্পিড তুলতে পারে। গাড়ির ব্যাটারি এক চার্জ ৫০০ কিলোমিটার অব্দি পথ অতিক্রম করতে পারে। গাড়িটির ব্যাটারি ৮০ শতাংশ চার্জ করতে মাত্র ৩০ মিনিট সময় লাগবে।
অত্যাধুনিক ইলেকট্রিক প্রিমিয়াম সেডান গাড়ির সামনে এলইডি প্রজেক্টর হেড ল্যাম্প ও কানেক্টেড এলইডি স্ট্রিপ দেখা যাবে যা গাড়ির লুককে বেশ আকর্ষণীয় করছে। এছাড়াও গাড়ির ভিতরে সমস্ত মেটেরিয়াল প্রিমিয়াম দেওয়া হবে যাতে গ্রাহকরা গাড়িতে বসে মার্সিডিজ ইলেকট্রিক গাড়ির প্রিমিয়াম ফিল অনুভব করতে পারে। কোম্পানির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে আগামী বছরের মধ্যেই ভারতের বাজারে Praveg Extraction MK-1 লঞ্চ হয়ে যাবে।

Latest Posts

টেক নিউজ